ওয়ানডে ক্রিকেটে সর্বোচ্চ পাঁচ ওপেনিং জুটি; আছেন বাংলাদেশের সেরা দুই ওপেনার

ক্রিকেটে রান সংগ্রহ করার ক্ষেত্রে ব্যাটসম্যানদের জুটি গড়ে তোলার কোনো বিকল্প নেই। আর সেটা যদি প্রথম ইনিংসে ব্যাটিং হয় তাহলেতো কোনো কথাই নেই। জয়ের ভিত পেতে হলে প্রথমেই ইনিংস উদ্বোধন করা দুই ব্যাটসম্যনকে দেখাতে হয় দৃঢ়তা। অন্যদিকে রান চেজ করার ক্ষেত্রেও এর বিকল্প নেই, কেননা বড় জুটির উপরই নির্ভর করে থাকে দলের জয় কিংবা পরাজয়।

একনজরে দেখে নেওয়া যাক ওয়ানডে ক্রিকেটে সর্বোচ্চ রানের পাঁচ ওপেনিং জুটিঃ-

শাই হোপ ও জন ক্যাম্পবেল-৩৬৫

গেল বছর আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজে স্বাগতিক আইরিশদের বিপক্ষে উইন্ডিজ ওপেনার শেই হোপ ও জন ক্যাম্পবেল জুটি বোর্ডে তুলেছিলেন ৩৬৫ রান। যা কিনা বিশ্ব ক্রিকেটে এযাবৎকালের সর্বোচ্চ।

ইমাম উল হক ও ফখর জামান- ৩০৪

দ্বিতীয় সেরা জুটি গড়েছিলেন পাকিস্তানের দুই ওপেনার ইমাম উল হক ও ফখর জামান। ২০১৮ সালে জিম্বাবুয়ে সফরে পাকিস্তানের এই দুই ওপেনার তুলেছিলেন ৩০৪ রান।

তামিম ইকবাল ও লিটন দাস-২৯২

চলতি বছর জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজের শেষ ওয়ানডেতে বৃষ্টি হানায় একবার ম্যাচ থমকে গেলে। সিলেটের আকাশ দেখে মনে হচ্ছিল অধিনায়ক হিসেবে মাশরাফির শেষ ম্যাচটি বুঝি ভেসেই গেল! কিন্ত না। মেঘদূত কৃপা দেখিয়ে চলে গেলেন মেঘালয়ের ওপাশে। আর তাতে ম্যাচ মাঠে গড়ানোর সম্ভাবনাও উঁকি দিল। মাঠ শুকিয়ে যেতেই খেলা শুরু হলো অমনি ব্যাট হাতে ছক্কা-বৃষ্টি শুরু করে দিলেন দুই টাইগার ওপেনার তামিম ইকবাল ও লিটন দাস। ওপেনিং জুটি খেললেন ২৯২ রানের মহাকব্যিক এক ইনিংস। বা তাদের দেশের ক্রিকেটের সীমানা পেরিয়ে নিয়ে গেল বিশ্বসেরা রেকর্ডের কাতারে।

দেশের ক্রিকেটে সর্বকালের সেরা জুটির পুরনো রেকর্ড ভেঙে নতুন রেকর্ড করা তামিম-লিটন বিশ্ব ক্রিকেটের তৃতীয় সেরা উদ্বোধনী জুটি।

সনাৎ সয়সুরিয়া ও উপুল থারাঙ্গা-২৮৬

২০০৬ সালে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ওপেনিংয়ে ২৮৬ রানের জুটি গড়েন শ্রীলংকার বিধ্বংসী ওপেনার জয়সুরিয়া এবং থারাঙ্গা। জয়সুরিয়া ১৫২ রান এবং থারাঙ্গা ১০৯ রান করে আউট হন।

ওয়ার্নার ও ট্রাভিস হেড-২৮৪

২০১৭ সালে অস্ট্রেলিয়ার অ্যাডিলেডে পাকিস্তানের বিপক্ষে ২৮৪ রানের উদ্বোধনী ইনিংস খেলেন অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটসম্যান ডেভিড ওয়ার্নার ও ট্রেভিস হেড।

Related posts

Leave a Comment